বিশ্ব ক্যান্সার দিবস

আজ ৪ঠা ফেব্রুয়ারি, বিশ্ব ক্যান্সার দিবস। ২০০০ সালে দিনটিকে বিশ্ব ক্যান্সার দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হয়। সেই থেকে প্রতি বছর অতি গুরুত্বের সাথে দিবসটি বিশ্বব্যাপী পালন করা হয়।

ইউনিয়ন অফ ইন্টারন্যাশনাল ক্যান্সার কন্ট্রোল (UICC) বিশ্ব ক্যান্সার দিবসকে ‘বিশ্বব্যাপী ঐক্যবদ্ধ উদ্যোগ’ হিসেবে ঘোষণা করেছে।

২০২২-২০২৪ সালের বিশ্ব ক্যান্সার দিবসের প্রতিপাদ্য ‘Close the care gap’, অর্থাৎ ক্যান্সারে আক্রান্তদের চিকিৎসা ও সেবা পাওয়ার ক্ষেত্রে বৈষম্য দূরীভূত করা। ক্যান্সার বর্তমানে হৃদরোগের পর দ্বিতীয় অসংক্রামক মরণব্যাধি। এটি অনিয়ন্ত্রিত কোষ বিভাজনের ফলে সৃষ্টি হয় এবং সঠিক সময়ে সঠিক চিকিৎসা না পেলে মানুষ আস্তে আস্তে মৃত্যুর দিকে ধাবিত হয়। প্রাথমিক অবস্থায় ক্যান্সার সাধারণত সহজে ধরা পড়ে না, তবে প্রাথমিক অবস্থায় ধরা পড়লে এই রোগ সারানোর সম্ভাবনা অনেকাংশে বেড়ে যায়। সাধারণত প্রস্টেট ক্যান্সার, জরায়ু ক্যান্সার, স্তন ক্যান্সার, অগ্ন্যাশয় ক্যান্সার, লিউকেমিয়া প্রভৃতি বেশি হতে দেখা যায়। ক্যান্সারভেদে লক্ষণও ভিন্ন ভিন্ন হয়। বয়স, খাবার, জীবনযাপনের ধারা, জিনগত কারণ, পরিবেশ ও পেশাগত কারণ প্রভৃতির সাথে ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার সম্পর্ক লক্ষণীয়। ‘প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধই শ্রেয়’- কথাটি ক্যান্সারের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। সঠিক খাদ্যাভ্যাস, ব্যায়াম এবং ক্যান্সার সম্পর্কে পূর্বসচেতনতাই পারে ক্যান্সারের মতো মরণব্যাধি থেকে মানুষকে রক্ষা করতে। সেই সাথে ক্যান্সারে আক্রান্তদের মানসিক স্বাস্থ্যের প্রতি খেয়াল রাখাও অনেক গুরুত্বপূর্ণ। মানুষ ক্যান্সার সম্পর্কে সঠিক তথ্য জানবে, নিজে সচেতন হবে, আশেপাশের সবাইকে সচেতন করবে এবং ক্যান্সারে আক্রান্তদের যত্মের সাথে সঠিক সময়ে সঠিক চিকিৎসা প্রদান করবে-বিশ্ব ক্যান্সার দিবসে এটাই KIN এর প্রত্যাশা।
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

Leave a Comment

Your email address will not be published.