যাত্রীবাহী লঞ্চের ইঞ্জিনে ভয়াবহ এক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা

          ঝালকাঠির সুগন্ধা নদীতে ঢাকা থেকে বরগুনাগামী ‘এমভি অভিযান-১০’ নামক যাত্রীবাহী লঞ্চের ইঞ্জিন থেকে ২৩শে ডিসেম্বর, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে ভয়াবহ এক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। লঞ্চটিতে তখন প্রায় ৭০০-৮০০ জন যাত্রী ছিলো।

অগ্নিকাণ্ডে এখন পর্যন্ত প্রায় ৩৮ জনের মরদেহ উদ্ধারের খবর পাওয়া গিয়েছে, আহত হয়েছেন শতাধিকের বেশি যাত্রী।

জানা যায়,যাত্রার শুরু থেকেই লঞ্চটির গতি ছিলো বেপরোয়া এবং ইঞ্জিন ছিলো ত্রুটিপূর্ণ। ইঞ্জিনের ত্রুটি খুঁজে পেতে চলন্ত লঞ্চেই, লঞ্চভর্তি যাত্রী নিয়ে পুরো গতিতে দুটি ইঞ্জিন চালিয়ে ট্রায়াল দেয়া হচ্ছিলো। যার কারণে ইঞ্জিনের অতিরিক্ত তাপে লঞ্চে আগুন ধরে যায়। লঞ্চে ছিলো না কোনো অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থাও। আগুন লাগার পরপরই লঞ্চটির মালিক ও স্টাফরা আগুন নেভানোর কোনো চেষ্টা না করে বরং লঞ্চ থেকে পালিয়ে যান।
KIN– এই ঘটনায় গভীরভাবে শোকাহত এবং নিহত যাত্রীদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করছে। সেইসাথে KIN-ঘটনায় জড়িত দোষীদের উপযুক্ত শাস্তি প্রদানসহ ত্রুটিপূর্ণ পরিবহন চালানো বন্ধ করা, পরিবহনে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জোর দাবি জানাচ্ছে।
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin

Leave a Comment

Your email address will not be published.